ষষ্ঠ বর্ষ / সপ্তম সংখ্যা / ক্রমিক সংখ্যা ৫৯

বুধবার, ১১ এপ্রিল, ২০১৮

নীপবীথি ভৌমিক




মানুষ


এই যে এত আলোর কথন,
তারপর তো সবটাই রাত
জেগে ওঠে শিশু খুন, রক্তপাত ধর্ষণকামী যুবক যুবতী

আমার নিশানের গায়ে কোনো বাদী-সমবাদীর নাম রাখি না
পতাকা উড়তে চায় আমার মানবিকতার শ্লোকে

তুমিও শান্ত হও মানুষ ধীর হও তুমি
আদিম রিপু জেনেও হিংস্রতায় ভাসিও না মন তোমার
পবিত্র ঘাস আজও পবিত্র হয়ে আছে, অনুভব ছুঁয়ে বয়ে যাক আজ
মানবতার মানুষ রঙ


অদৃশ্য


ঘুম হয়ে বসে থাকে যে ঘুমঘর
কেই বা জানে তাকে?
স্পর্শ রেখে যাই স্বার্থহীন পথে কে কোথায়
অচেনা চেনেই শুধু তাকে

অথচ এই মুঠো দ্যাখো, সেই স্পর্শে যে জল ঝরে যায়
নিজস্ব দর্পণের কাছে, সেও কি কখনো স্বার্থহীন?

ঘুমঘর জেগে থাকে তাই অদৃশ্যে চিঠি লিখে
জলবিন্দু জানে সেকথা, আর বোঝে কিছু আয়না।
আমাদের পথ তবুও এঁকে যায় নিঃস্বার্থের অদৃশ্য বাহানা


0 কমেন্টস্:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন