ষষ্ঠ বর্ষ / চতুর্থ সংখ্যা / ক্রমিক সংখ্যা ৫৬

শনিবার, ৬ জানুয়ারী, ২০১৮

ইন্দ্রনীল ব্যানার্জী


চল সবাই এবার হয়ে উঠি ধর্ষক

সব সুনিপুণ ধর্ষণের ঘটনার
শেষ পূর্ণচ্ছেদে দেখেছি
এযাবত বৃক্ষের থেকেও একলা মানুষ
মানুষের কোষে বিষে ভরে গেছে
নারী পুরুষের লিঙ্গে ঝুলছে
মাংসের ব্যর্থতার কাহিনী

টিভির চ্যানেলে দেখলাম
এই মাত্র এক নারী ধর্ষিতা হলো
ধর্ষিত হলো মানুষ
আদপে লিঙ্গের ধর্ষণ হবার আগেই
ধর্ষকেরও ধর্ষণ হয় অন্তরে,
সব চিন্তার উত্সস্থলে বসে আছে ধর্ষক

চল পাল্টাই নিয়ম
লিঙ্গের থেকে উর্ধে গিয়ে
এবার ধর্ষণ করি
নিজের ভিতরের ধর্ষককে

গভীর ঘুম থেকে বেরিয়ে
চল সবাই এবার হয়ে উঠি ধর্ষক 

রাস্তার ছেলে

প্রথম যেদিন তোমায় প্রপোজ করেছিলাম
বলেছিলে রকিস্ট একটা রাস্তার ছেলে
এরপর আমি দেখলাম আকাশের নীচে
সব রাস্তা একদিকে চলে যাচ্ছে
সেদিকে অসংখ্য চিল উড়ছে

এরপর আমি খুঁজেছি রাস্তার মানে রাস্তায়
রাস্তায় সব পাথরের নাম লেখা আছে
যারা রাস্তা হয়েছে সেসব পাথরকে
কেউ মনে রাখেনি

আমি আর কাউকে প্রপোজ করিনি
আমি রাস্তার ছেলে হয়ে রাস্তায় এখনো
আমি রাস্তার ছেলে না হলে
আর কোনো রাস্তা থাকবে না এ রাষ্ট্রে  

নারী তুমি নারী নও

নারী তুমি নারী নও
এক সুগভীর হ্রদের ভিতর থেকে উঠে আসা
কোরাল অথবা কেলাসের স্বচ্ছ স্ফটিকের মতো

সৃষ্টির এক আশ্চর্য  শিল্প তুমি। 

0 কমেন্টস্:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন