ষষ্ঠ বর্ষ / নবম সংখ্যা / ক্রমিক সংখ্যা ৬১

শুক্রবার, ১ জুন, ২০১৮

জয়া ঘটক




সন্দেহ


ছুঁয়ে থাকা আর ছেড়ে যাওয়া এই দোলাচলের মধ্যেই ভেঙ্গে টুকরো টুকরো হয়ে যায় সম্পর্ক। আলোক নিষিদ্ধ ঘরে ময়নাতদন্ত হয়! কী দেখে শনাক্ত করা হবে?  দীনতা বাড়ায়। কার কার মৃত্যু হয় এই দোলাচলে?

সব তীর ছুটে আসে একদিকেরায় বের হয়... সব মৃত্যুর জন্য তুমিই দায়ী!

অ্যাসাইলেমে নিরালায় বসে ভেবে যায় মেয়েটি তার অবস্থার জন্য কে দায়ী?


প্রেম


জল যেন স্বপ্নমাখা, তাই
খুঁজে ফিরি প্রথম প্রেম!

শুধু সেই জানে
চোখের জলের ইতিহাস!


দহন


লিখছি নৈঃশব্দ্য, অপরাধ,অন্ধকার
হারিয়ে গেছে জোছনা
শব্দ, আলো, ঘন কুয়াশার ভেতর।

তারপর সুদীর্ঘ শীতল রাত্রির
আর পিছনে ধাবমান জ্বলন্ত চিতা

তবুও বেঁচে আছি দেখো
শুধু মাত্র মৃত্যুর জন্য।
নিজেকে দাহ করেই
ফিরবো নিজের কাছে।



4 কমেন্টস্: